অনলাইনড‌েস্কঃ

ইসলামিক স্টেটের (আইএস) একটি কালো আইএসের ভিডিওতে শ্রীলংকায় হামলার 'হোতা'সহ ৮ জন।পতাকা টাঙানো পেছনে। আর সামনে দাঁড়িয়ে আটজন পুরুষ তাদের নেতা আবু বকর আল বাগদাদির প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করছে। এমনই একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে আইএসের সংবাদ সংস্থা হিসেবে পরিচিত ‘আমাক’।

মঙ্গলবার রাতে প্রকাশিত এই ভিডিওতে যে আটজনকে দেখা যাচ্ছে তারাই রোববার শ্রীলংকায় আত্মঘাতী বোমা হামলা চালিয়েছে বলে দাবি করেছে ইসলামিক স্টেট, যে হামলায় সাড়ে তিনশ’র বেশি মানুষ নিহত হয়েছে।

ভিডিওতে আটজনের মধ্যে সাতজনের মুখই কাপড় দিয়ে ঢাকা ছিল। খোলা ছিল একজনের মুখ, যাকে মোহাম্মদ জাহরান হিসেবে দাবি করা হচ্ছে।

শ্রীলংকার গোয়েন্দা কর্মকর্তা ও দেশটির প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহের বিশ্বাস— এই মোহাম্মদ জাহরানই হামলার মূলহোতা।

মুসলিম নেতারা জানান, জাহরান তার জঙ্গিবাদী দৃষ্টিভঙ্গির জন্যই পরিচিত। শ্রীলংকা এক গোয়েন্দা প্রতিবেদনেও একই রকম তথ্যের উল্লেখ রয়েছে, যে প্রতিবেদন রয়টার্স দেখেছে।

শ্রীলংকা অন্যতম প্রধান তিনটি মুসলিম গোষ্ঠীর নেতারা রয়টার্সকে বলেন, জাহরান ইসলামিক স্টেটকে সমর্থন করে বার্তাসহ বিভিন্ন ধরনের পোস্ট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেওয়ার পর তার উগ্রপন্থি বিশ্বাসের বিষয়ে সতর্ক করতে গত তিন বছরে তারা শ্রীলংকার প্রতিরক্ষা ও গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের সঙ্গে বেশ কয়েকটি বৈঠক করেছেন।

তারা জানান, ফেসবুকে জাহরানের দুইশ’রও কম অনুসারী রয়েছে। অমুসলিমদের বিরুদ্ধে সহিংসতার আহ্বান জানিয়ে ২০১৬ সালে তিনি নিজের ফেসবুক পেজে উগ্রপন্থি ভিডিও পোস্ট করতে শুরু করেন।

প্রসঙ্গত, শ্রীলংকায় ইস্টার সানডের দিন সকালে তিনটি গির্জা, চারটি হোটেলে আত্মঘাতী বোমা হামলায় এখন  পর্যন্ত ৩৫৯ জনের প্রাণহানি হয়েছে। আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন প্রায় পাঁচশ’ মানুষ। হামলার এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে এখন পর্যন্ত ৫৮ জনকে আটক করেছে শ্রীলংকার কর্তৃপক্ষ।

রোববার হামলার পর মঙ্গলবার জঙ্গি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট তাদের নিজস্ব সংবাদ মাধ্য ‘আমাকে’র মাধ্যমে হামলা দায় স্বীকার করে। এরপর একইদিন রাতে আটজনের ভিডিও প্রকাশ করে আমাক দাবি করে, এরাই শ্রীলংকায় হামলা চালায়।