নিজস্ব সংবাদদাতা || দৈনিক শিক্ষাবার্তাঃ

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিয়োগের জন্য পঁয়ত্রিশোর্ধ নিবন্ধন সনদধারীদের আবেদনের সুযোগ দিয়ে মেধাতালিকা অনুসারে নিয়োগের নির্দেশ।এনটিআরসিএ সনদধারী ও ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দের ১২ জুনের পূর্বে পঁয়ত্রিশোর্ধ প্রার্থীরা এখন থেকে Ntrca এর আগামী নিয়োগ কার্যক্রমে আবেদন করতে পারবে। পঁয়ত্রিশোর্ধ নিবন্ধনধারীদের আবেদনের সুযোগ ও মেধাতালিকা অনুসারে নিয়োগের নির্দেশনা দিয়ে রায় প্রদান করেছেন হাইকোর্ট। ২২ মে (বুধবার) ৩টি রিট পিটিশনের চূড়ান্ত শুনানি শেষে বিচারপতি এ.এফ.এম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কে.এম. কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই রায় প্রদান করেন। রিট আবেদনকারীদের আইনজীবি এবং হাইকোর্টের একাধিক সূত্র “দৈনিক শিক্ষাবার্তা” কে সংবাদটি নিশ্চিত করেছেন।

রিট আবেদনকারীদের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্লাহ্ মিয়া বলেন, ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দের পূর্বে সারাদেশের বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহে শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে চাকরির কোন বয়সসীমা নির্ধারিত ছিল না, কিন্তু  শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগ গত বছরের ১২ জুন  জারি করা জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালায় বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ করা হয়। নীতিমালার ধারাবাহিকতায় এনটিআরসিএ শুধু ৩৫ অনূর্ধ্ব প্রার্থীদের আবেদনের সুযোগ দিয়ে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। নীতিমালা জারির পূর্বে যারা এনটিআরসিএ কর্তৃক সনদ প্রাপ্ত হয়েছেন এবং মেধা তালিকায় অন্তভুক্ত হয়েছেন কিন্তু ৩৫ বছর বয়স হয়ে গিয়েছে তাদের আবেদনের সুযোগ দেয়া হয়নি।

ছিদ্দিক উল্লাহ মিয়া বলেন, এ রায়ের ফলে যারা ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দে এমপিও নীতিমালা জারির পূর্বে এনটিআরসি সনদ প্রাপ্ত হয়েছেন তাদের এনটিআরসিএ’র নিয়োগ প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণে আর কোন বাধা থাকলো না। তাঁরা এখন থেকে পরবর্তী যে কোনো নিয়োগে বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে চাকরির জন্য আবেদন করতে পারবেন।