শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নিয়ে সিদ্ধান্ত দু-এক দিনের মধ্যে

বিশ্বব্যাপি মহামারি করোনাভাইরাসের মধ্যে আগামী ১৪ নভেম্বরের পর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সীমিত পরিসরে খোলা হবে, নাকি ছুটি আরও বাড়ানো হবে-সে ব্যপারে আগামী দু-এক দিনের মধ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত জানা যাবে। এ বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় প্রেসকে অবহিত করবে।শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নিয়ে সিদ্ধান্ত দু-এক দিনের মধ্যে

সেমাবার মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে সচিবালয়ে প্রেস বিফিং কালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম এ কথা বলেন।

বাংলাদেশে করোনাভাইসের প্রকোপ বাড়তে শুরু করলে গত ১৭ মার্চ থেকে দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়া হয়। কওমি মাদ্রাসা বাদে অন্যসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আগামী ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করা আছে। মহামারীর মধ্যে এবার পঞ্চম ও অষ্টমের সমাপনী পরীক্ষা এবং মাধ্যমিক স্তরের বার্ষিক পরীক্ষা নেবে না সরকার। আর অষ্টমের সমাপনী এবং এসএসসি ও সমমানের ফলফলের ভিত্তিতে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল ঘোষণা করা হবে।

আগামী বছর যারা এসএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষায় বসবে, তাদের কথা ভেবে ১৪ নভেম্বরের পর সীমিত পরিসরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হতে পারে বলে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি আগেই আভাস দিয়েছেন। তবে তার আগে করোনাভাইরাস পরিস্থিতিকে বিবেচনায় নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার মত পরিবেশে সৃষ্টি হয়েছে কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয় দুই এক দিনের মধ্যেই সিদ্ধান্ত জানাবে।

করোনার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন কিনা-এ বিষয়ে জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, খুলনা বিভাগ থেকে কঠোরভাবে পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হচ্ছে। সব জায়গায় এভাবে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য সকল বিভাগীয় কমিশনারদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীও এমন সিদ্ধান্তকে মূল্যায়ন করেছেন। তবে এখনো পর্যন্ত আমরা কমফোর্টেবল জোনের মধ্যে রয়েছি। সকলকে মাস্ক ব্যবহারে জন্য বেশি বেশি প্রচারের জন্য গণমাধ্যমের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here