করোনাভাইরাস সূর্যের তীব্র আলোতে ধ্বংস হয় বলে দাবি করেছেন কয়েকজন মার্কিন বিজ্ঞানী। যুক্তরাষ্ট্রের হোমল্যান্ড সিকিউরিটির বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের উপদেষ্টা উইলিয়াম ব্রায়ান বৃহস্পতিবার হোয়াইট হাউসে সংবাদ সম্মেলনে একটি গবেষণার তথ্য তুলে ধরে এই দাবি করেছেন।সূর্যের তীব্র আলোতে ধ্বংস হয় করোনাভাইরাস

এ সময় উপস্থিত ছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও যুক্তরাষ্ট্রের করোনা টাস্কফোর্সের সদস্য ডেবোরাহ বির্কস।

 

উইলিয়াম ব্রায়ান বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি বিজ্ঞানীরা একটি গবেষণায় দেখেছেন সূর্যের তীব্র আলোতে ধ্বংস হয় করোনাভাইরাস কারন এই আলোতে থাকা অতিবেগুনি রশ্মি করোনাভাইরাসের উপর যথেষ্ট প্রভাব ফেলতে সক্ষম।

 

তিনি বলেন, আজ পর্যন্ত আমাদের গবেষণার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো এই ভাইরাসকে বাতাসের মধ্যেই মেরে ফেলার ক্ষমতা রয়েছে সূর্যের আলোর। তাপমাত্রা ও আর্দ্রতার ওঠানামা করেও একই রকম ফলাফল পাওয়া গেছে।

গবেষণা অনুসারে, ২১ থেকে ২৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় (২০ শতাংশ আর্দ্রতা), করোনাভাইরাসটি মাত্র আধঘণ্টার মধ্যে অর্ধেক হয়ে গেছে। দরজার হাতল এবং স্টেনলেস স্টিলের ক্ষেত্রে একই প্রভাব দেখা গেছে। আর্দ্রতাকে ৮০ শতাংশ বাড়ানোর পরেই দেখা গেছে ৬ ঘণ্টার মধ্যে করোনা অর্ধেক জীবাণু ধ্বংস হয়েছে। এবার এই পরীক্ষাটিই যখন সূর্যের আলোর মধ্যে করা হয়েছে, তখন দেখা গেছে করোনার জীবাণুকে ধ্বংস করতে মাত্র ২ মিনিট সময় লেগেছে।

ব্রায়ান জানান, মেরিল্যান্ডের ন্যাশনাল বায়োডিফেন্স অ্যানালাইসিস এবং কাউন্টার মেজরস সেন্টারে একটি গবেষণাও করা হয়েছে এই তথ্যের উপর।

এই গবেষণার ফলাফলের ভিত্তিতে মার্কিন বিজ্ঞানীরা মনে করছেন, গরম যত বাড়বে ততই ক্ষমতা কমতে থাকবে করোনার।

তবে ব্রায়ান সতর্ক করে জানিয়েছেন, এর অর্থ এই নয় যে করোনাভাইরাস গরমের সময়ে একবারে নির্মূল হয়ে যাবে এমন দাবি করা হচ্ছে। তাই সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ যাবতীয় বিধিনিষেধগুলো মেনে চলতে হবে মানুষকে।

সংবাদ সম্মেলনে ডোনাল্ড ট্রাম্প টাস্কফোর্স সদস্য ডেবোরাহকে জিজ্ঞেস করেন, মানুষের শরীরে আলোর ব্যবহার করে কি ভাইরাসকে ধ্বংস করা সম্ভব।

জবাবে ডেবোরাহ বলেন, এই বিষয়ে তিনি অবগত নন। কিন্তু তাপমাত্রা শরীরের জন্য ভালো, এতে করে আক্রান্ত শরীর দ্রুত সাড়া দেয়।

তখন ট্রাম্প বলেন, আমি আশা করি মানুষ সূর্যের তীব্র আলোতে উপভোগ করবে নিজেকে। আর যদি এটির প্রভাব থাকে তাহলে দারুণ হবে।

অবশ্য ডিপার্টমেন্ট অব হোমল্যান্ড সিকিউরিটি এই গবেষণা প্রতিবেদনের বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে কিছু জানায়নি।

তবে প্রাথমিক কিছু গবেষণায় দেখা গেছে, উষ্ণ আবহাওয়া করোনাভাইরাসের বিস্তারের জন্য প্রতিকূল। যদিও বেশ কিছু দেশে গ্রীষ্মকালেও করোনার সংক্রমণ ছড়িয়েছে।

আপনার মন্তব্য

আপনার মতামত দিন
আপনার নাম