স্বেচ্ছায় অবসরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত মেনে নিন- শ্রম প্রতিমন্ত্রী
শ্রম প্রতিমন্ত্রী মুন্নুজান সুফিয়ান।

পাটকল শ্রমিকদের স্বেচ্চায় অবসরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত মেনে নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন শ্রম প্রতিমন্ত্রী মুন্নুজান সুফিয়ান। সরকারের সিদ্ধান্ত অনুসারে যথা সময়ে শ্রমিকদের পাওনা টাকা বুঝিয়ে দেওয়া হবে। এরপরেও কেউ বিছিন্নভাবে আন্দোলন করলে তা সমর্থন না দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন শ্রমিক নেতাদের।

স্বেচ্ছায় অবসরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত মেনে নিন- শ্রম প্রতিমন্ত্রী
শ্রম প্রতিমন্ত্রী মুন্নুজান সুফিয়ান।

সোমবার রাজধানীর শ্রম ভবনে শ্রমিক নেতাদের সঙ্গে প্রতিমন্ত্রী মুন্নুজান সুফিয়ানে বৈঠকের সময় তিনি শ্রমিক নেতাদের এই আহ্বান জানান। এসময় সারা দেশ থেকে ২৫টি পাটকলের প্রায় ৪০ জন শ্রমিক নেতা উপস্থিত ছিলেন। বৈঠক সূত্রে জানা যায়, বন্ধ পাটকল খুলে দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন শ্রম প্রতিমন্ত্রী। পাটকল শ্রমিকদের অবসরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত অধিকাংশ শ্রমিক নেতারা মেনে নিয়েছেন। এরপরেও কেউ বিচ্ছিন্নভাবে আন্দোলন করলে তাতে সমর্থন না দেওয়ার কথা জানিয়েছেন নেতারা।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, অবসরে যাওয়া শ্রমিকদের শ্রম আইন অনুযায়ী পাওনা পরিশোধ করা হবে। তবে কিছু শ্রমিক নেতা এর সাথে দ্বিমত পোষণ করলেও, সিদ্ধান্ত না মানার কোনো কারণ নেই বলেও জানান প্রতিমন্ত্রী।

জাতীয় শ্রমিকলীগের সভাপতি ফজলুল হক মন্টু গণমাধ্যম কে বলেন, পাটকল একটি অলাভজনক প্রতিষ্ঠান। সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সেটি বন্ধ থাকবে। তবে শ্রমিকদের পাওনাদি পরিশোধ করা হবে। বিচ্ছিন্নভাবে কেউ আন্দোলনে থাকলেও তাতে নেতাদের সমর্থন থাকবে না বলেও জানান তিনি।

এরই মধ্যে সরকারের পক্ষ থেকে রাষ্ট্রায়ত্ব মিলগুলো সরকারি-বেসরকারি অংশিদারিত্ব বা পিপিপি’র আওতায় পরিচালনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে তার আগে পরিশোধ করা হবে শ্রমিকদের বকেয়া বেতন-ভাতা। এজন্য বাজেট হতে প্রায় ৫ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হবে।

বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের অধীন পাটকল করপোরেশন -বিজেএমসির ব্যবস্থাপনায় চালু কারখানার সংখ্যা ২৫টি। রাষ্ট্রায়ত্ত ২৫টি পাটকলে এই মুহূর্তে ২৪ হাজার ৮৮৬ জন স্থায়ী শ্রমিক রয়েছেন। তাদের গোল্ডেন হ্যান্ডশেকের মাধ্যমে অবসর  দেওয়ার কথা জানানো হয়েছে।

আপনার মন্তব্য

আপনার মতামত দিন
আপনার নাম