কোনো মামলার অনেক আসামি হলে সেক্ষেত্রে চার্জশিটের আগে আসামির হাজিরা অব্যাহতির ব্যবস্থা চায় আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। এছাড়া দীর্ঘদিন ধরে চলা মামলার চার্জশিট দ্রুত দেয়ার ব্যবস্থা চায় তারা।চার্জশিটের আগে আসামির হাজিরা

বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত কমিটির বৈঠকে এসব বিষয়ে আলোচনা হয়।

বৈঠক শেষে কমিটির সদস্য বিএনপির এমপি রুমিন ফারহানা গণমাধ্যম কে বলেন, অনেক মামলা বছরের পর বছর ধরে চলে চার্জশিট দেয়া হয় না। সাগর-রুনি হত্যা মামলার চার্জশিট দেয়ার সময় ৭৭ বার পিছিয়েছে। এগুলো নিয়ে আলোচনা করার জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানানো হবে। অনেক মামলায় বেশি সংখ্যক আসামি করা হয়। শত শত আসামি করারও ঘটনা আছে। চূড়ান্ত চার্জশিট দেয়ার আগে এত আসামির হাজিরা অব্যাহতি দেয়া যায় কিনা সে বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ করা হয়েছে।

বৈঠকে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যের কুশীলবদের শনাক্ত করে বিচারের আওতায় আনার জন্য কমিশন গঠনের বিষয়ে আলোচনা হয়েছে উল্লেখ করে রুমিন বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যের কুশীলবদের শনাক্ত করে বিচারের আওতায় আনার জন্য একটি কমিশন হবে। আমি বলেছি এক্ষেত্রে যেন রাজনীতিকরণ না হয় সেটা দেখতে হবে। বঙ্গবন্ধুর খুনিদের কারা কোথায়, কীভাবে পুনর্বাসন করেছে সেটা যথাযথভাবে যেন তদন্ত হয় তা বলেছি।

এছাড়া ধর্ষণ মামলার ক্ষেত্রে ডিএনএ ল্যাব বাড়ানো ও ডোপ টেস্টের জন্য পর্যাপ্ত সংখ্যক ল্যাব গঠনের সুপারিশ করা হয়। বৈঠকে বিচার দ্রুত শেষ করতে পর্যাপ্ত সংখ্যক বিচারক নিয়োগের বিষয়ে সুপারিশ করা হয়েছে।

কমিটির সভাপতি আব্দুল মতিন খসরুর সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য আইনমন্ত্রী আনিসুল হক, মো. শামসুল হক টুকু, আব্দুল মজিদ খান, শহীদুজ্জামান সরকার, গ্লোরিয়া ঝর্ণা সরকার, রুমিন ফারহানা, খোদেজা নাসরিন আক্তার হোসেন অংশ নেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here