বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) ইতিহাস ও প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আক্তারুল ইসলাম (৪৮) মারা গেছেন। শুক্রবার ঈদের নামাজ আদায় করে বাড়ি ফেরার কিছুক্ষণ পর অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। হাসপাতালে নেয়ার আগেই নিজ বাসভবনে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

তরমুজ খেয়ে অসুস্থ বেরোবি শিক্ষকের মৃত্যু
বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) ইতিহাস ও প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আক্তারুল ইসলাম (৪৮)।

ওই শিক্ষকের বাবা তৌফিকুল ইসলাম দৈ‌নিক শিক্ষাবার্তা কে জানান, বৃহস্পতিবার (১৩ মে) তরমুজ খেয়েছিলেন আক্তারুল ইসলাম। এরপর থেকে তার পেটের সমস্যা দেখা দেয়। তিনি রাতে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে স্থানীয় চিকিৎসকের পরামর্শে ওষুধ খেয়ে একটু সুস্থ হন। শুক্রবার ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করেন। দুপুরে জুমার নামাজ পড়তে যাওয়ার প্রস্তুতির সময় আবারও অসুস্থতা বোধ করেন আক্তারুল।

পেটের ব্যথা গুরুতর হওয়ার সঙ্গে শ্বাসকষ্ট অনুভব করলে তাকে হাসপাতালে নেওয়ার প্রস্তুতি নেওয়া হয়। তার আগেই বাড়িতেই মারা যান আক্তারুল ইসলাম।

সন্ধ্যায় মাগরিবের নামাজের পর পীরগঞ্জে ভেলাতৈড় জামতলী স্কুল মাঠে মরহুমের নামাজের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। পরে স্থানীয় যৈদ্দপীর কবরস্থানে তার দাফনকার্য সম্পন্ন করা হয়।

এদিকে শিক্ষক আক্তারুল ইসলামের মৃত্যুতে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারীসহ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির, সাংবাদিক সমিতিসহ বিভিন্ন সংগঠন শোক প্রকাশ করেছে।