নতুন এমপিওভুক্ত হওয়া ৪ হাজার ৯২০ জন স্কুল-কলেজের শিক্ষক-কর্মচারীদের বকেয়া বেতন-ভাতা ছাড়ের সরকারি আদেশ (জিও) জারি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ । এদের মধ্যে স্কুলের ৩ হাজার ১৯৯ জন এবং কলেজের ১ হাজার ৭২১ জন শিক্ষক-কর্মচারী রয়েছেন। বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ সূত্র দৈনিক শিক্ষাবার্তা কে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।নতুন এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের বকেয়া বেতন-বোনাসের জিও জারি

জানা গেছে, খুব তাড়াতাড়ি শিক্ষকদের বকেয়াসহ বেতন ভাতার চেক ছাড় হবে। বকেয়া দুটি ঈদ বোনাস, বৈশাখী ভাতা ও গত বছরের জুলাই থেকে চলতি বছরের মে মাস পর্যন্ত বেতন একসঙ্গে পাচ্ছেন নতুন এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা। গত ১৮ জুন এমপিও কমিটির বিশেষ সভায় তাদের এমপিওভুক্ত করা হয়। তারা দ্বিতীয় দফায় অনলাইনে এমপিওভুক্তির আবেদন করেছিলেন।

তথ্য সূত্রে জানা যায়, স্কুল-কলেজের শিক্ষক কর্মচারীদের বকেয়া বেতন ও বোনাস দেয়ার জিও জারি হয়েছে। শিক্ষক-কর্মচারীরা ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দের জুলাই থেকে এপ্রিল মাস পর্যন্ত বকেয়া বেতন পাবেন। আর গত আগস্টে অনুষ্ঠিত ঈদুল আযহা আর গত ২৫ মে অনুষ্ঠিত ঈদুল ফিতরের ঈদ বোনাস পাচ্ছেন শিক্ষকরা। এছাড়া গত এপ্রিল মাসে দেয়া বৈশাখী ভাতার টাকাও পাবেন তারা। মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরে জিওর কপি গেলেই চেক ব্যাংকে পাঠনো হবে।

শিক্ষা অধিদপ্তর সূত্র দৈনিক শিক্ষাবার্তা কে আরও জানায়, খুব শিগগিরই নতুন এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের  বকেয়া বেতন বোনাসের চেক ছাড় করা হবে।

গত ২৯ এপ্রিল নতুন এমপিওভুক্ত স্কুল-কলেজের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত ১ হাজার ৬৫১টি প্রতিষ্ঠানের তথ্য যাচাই-বাছাই করে চূড়ান্তভাবে ১ হাজার ৬৩৩টি তালিকা প্রকাশ করা হয়।  এমপিওভুক্তির জন্য চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ৯৯১টি মাধ্যমিক স্কুল, ৪৩০টি নিম্ন মাধ্যমিক স্কুল, ৬৮টি স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ৯২টি উচ্চ মাধ্যমিক কলেজ এবং ৫২টি ডিগ্রি কলেজ রয়েছে।

চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দের ১ জুলাই থেকে বেতন ভাতা পাচ্ছেন। আর কোন প্রতিষ্ঠান যোগ্যতা ধরে রাখতে ব্যর্থ হলে তার এমপিও স্থগিত করা হবে বলেও সতর্ক করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here