ক্রিকেটার নাসির হোসেন ও তামিমা সুলতানা। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভালোবাসা দিবসে বিয়ের পিড়িতে বসেন তারা। তবে এই বিয়ের পর একের পর এক বিতর্কে জড়াতে থাকেন দুইজনই। নাসিরের বউভাত

অবশ্য আগে থেকে ক্রিকেটারদের মধ্যে সমালোচনার শীর্ষে ছিলেন নাসির। এবার তামিমাকে বিয়ে করে আবার তোপের মুখে পড়েন তিনি।

নাসিরের সঙ্গে বিয়ের পর তামিমাকে নিয়ে অভিযোগ উঠেছে, তার স্বামী রাকিব হাসানকে তালাক না দিয়েই নাসিরকে বিয়ে করেছেন তিনি। এই অভিযোগ এনে উত্তরা পশ্চিম থানায় সাধারণ ডায়েরিও করেছেন রাকিব। উত্তরা পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ মো. আক্তারুজ্জামান ইলিয়াস সাধারণ ডায়রির (জিডি) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, নাসিরের বউ তামিমার বিরুদ্ধে জিডি হয়েছে। কাগজে সে রাকিবের বর্তমান বউ। ৮ বছরের একটি সন্তানও আছে সেই সংসারে। রাকিবের দেয়া ফার্নিচারও তামিমার কাছে, যেখানে এখন নাসির থাকছেন। ডিভোর্স না দিয়েই রাকিবের সঙ্গে চলমান সংসার রেখে নাসিরকে বিয়ে করে তামিমা, অভিযোগ করেছেন রাকিব।

তবে এত বিতর্কের পরও থেমে যাননি নাসির। শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) হয়েছে তাদের বিয়ের রিসেপশন (বউভাত)।নাসিরের বউভাত

রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) ‘ড্রিম ওয়েভার’ নামে একটি ওয়েডিং প্ল্যানার সার্ভিস নাসির ও তামিমার বউভাতের ছবি প্রকাশ করে।

এর আগে গত ১৪ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে রাজধানীর উত্তরার একটি রেস্তোরাঁয় নাসির ও তামিমার বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়। নাসিরের স্ত্রী পেশায় একজন কেবিন ক্রু। কাজ করেন বিদেশি একটি এয়ারলাইনসে। বিয়ের অনুষ্ঠানে পরিবারের লোকজন এবং ঘনিষ্ঠ আত্মীয়স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন। নাসিরের বিয়ের অনুষ্ঠানে অনেক ক্রিকেটারও উপস্থিত ছিলেন।

নাসিরকে নিয়ে আগেও বিতর্ক কম হয়নি। ১০ বছরের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ক্যারিয়ারে পারফরম্যান্সের চেয়ে বেশির ভাগ সময়েই আলোচিত ছিলেন সমালোচনার জন্য। এর আগে ২০১১ সালে জাতীয় দলে অলরাউন্ডারের নাসিরের অভিষেকটা বেশ আলোকিত। হয়ে উঠেছিলেন দলের নিয়মিত মুখ। ইনিংসের শেষ দিকে কার্যকর ব্যাটিং, অসাধারণ ফিল্ডিং ও প্রয়োজনের সময় বলহাতে ব্রেক থ্রু এনে দেয়া, ‘টোটাল ক্রিকেটার’ হওয়ার সব বৈশিষ্ট্যই ছিল তার মাঝে। কিন্তু ছন্দ ধরে রাখতে পারলেন না নাসির। তারকা খ্যাতি পেয়েও দলছুটদের কাতারে যেতে বেশি সময় লাগেনি তার। আগের পারফরম্যান্স হারিয়ে ফেলার সঙ্গে নিজের ওপরও নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন ব্যক্তি নাসির। শৃঙ্খলাবিরোধী আচরণের জন্য সমালোচিত হন একাধিকবার।

নাসিরের এই ধরণের উচ্ছৃঙ্খল আচরণের জন্য মুখ খুলতে দেখা গেছে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনকেও। জানান, নাসিরের একাধিক মোবাইল ও ডজন খানেক সিম রয়েছে। এর মধ্যে আরও বিপত্তি বাঁধায় সুবাহ নামে এক মেয়ে। যার সঙ্গেও প্রেমে জড়ান দলছুট নাসির। কিন্তু সে সম্পর্ক টেকেনি। এ জন্য নাসিরের বিরুদ্ধে অভিযোগের শেষ নেই সুবাহর। বিভিন্ন সময় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এসে নাসিরের নামে আপত্তিকর সব মন্তব্যও করেন তিনি।

এদিকে নাসির এইসব কারণে জাতীয় দলে ডাক পান না ২০১৮ সাল থেকে। বয়সও এখন ৩০ ছুঁইছুঁই। ব্যক্তিগত জীবনে থিতু হতে এবার গাঁটছড়া বাঁধলেন কেবিন ক্রু তামিমা সুলতানার সঙ্গে। সেখানেও নাসিরকে নিয়ে সমালোচনা। এরপর তার জীবনে যুক্ত হয়েছে তামিমা। তার আগের জীবনও যেন একই সূতায় গাঁথা।

শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাইসা ইসলাম বাবুনি নামক এক ফেসবুক ব্যবহারকারীর একটি পোস্ট ভাইরাল হয়। যেখানে তামিমার স্বামী হিসেবে রাকিব নামে এক ব্যক্তি দাবি করেছেন, এখনও তাদের মধ্যে বৈবাহিক সম্পর্ক রয়েছে। এমনকি তাদের ঘরে রয়েছে ৮ বছরের ফুটফুটে এক কন্যাসন্তান।

সেই রাকিবের সঙ্গে বিবাহের নিকাহনামায় উল্লেখ করা আছে ২০১১ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি ৩ লাখ টাকা দেন মোহরে বিয়ে হয় তাদের। এরপর স্বামী মো. রাকিব হাসানকে তালাক না দিয়েই জাতীয় দলের নাসির হোসেনের সঙ্গে বিয়ে করেছেন তামিমা তাম্মি। এ নিয়ে এখন উত্তরা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন রাকিব।

রাকিব এতে দাবি করেন, তিনি ছাড়াও অন্য একজনের সঙ্গে ছয় মাস সংসার করেছেন তামিমা। সেই সংসার ছেড়ে আবার তার (রাকিব) কাছে ফিরে আসেন সে। এরপর আবার তাকে না ছেড়ে নাসিরের জীবনে চলে যান তামিমা।

এই মর্মে গত বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) রাতে উত্তরা পশ্চিম থানায় একটি জিডি করেন রাকিব। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আক্তারুজ্জামান ইলিয়াস। জিডির নম্বর ১৩/২৬।

এদিকে গত ১৪ ফেব্রুয়ারি যখন নাসিরের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন তামিমা। ওই সময় তাদের ছবি ভাইরাল হলে রাকিব জানতে পারেন, তামিমা বিয়ে করেছেন।

তবে জিডি করার কারণ উল্লেখ করে রাকিব বলেন, সংসারজীবনে বিবাদীর কাছে অনেক টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার রাখা আছে তার। এমনকি আমাকে তালাকও দেননি। টাকা ও অলঙ্কার চাইলে বিবাদী আমাকে ক্ষতি করবে বলে হুমকি দিয়েছেন।

রাকিব আরও বলেন, আপাতত তিনি কোনো মামলা করবেন না।

এদিকে নাসিরের সঙ্গে রাকিবের ফাঁস হওয়া একটি ভিডিওতে শোনা গেছে, তামিমা ছয় মাস যে ছেলের সঙ্গে সংসার করেছেন ওই ছেলের নাম অলক। এতে আরও শোনা গেছে, এখন নাসির যেই বাসায় তামিমার সঙ্গে থাকছেন সেই বাসার সব ফার্নিচারই রাকিবের কেনা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here