ফেসবুকে গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রীকে নিয়ে কটুক্তি করায় ৩ ছাত্র গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিনিধি, দৈনিক শিক্ষাবার্তাঃ

কুড়িগ্রামের রৌমারীতে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেনকে কটুক্তি করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট দেয়ায় ৩ ছাত্রকে গ্রেফতার করা হয়েছে। উপজেলার দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা রোববার সন্ধায় ওই ৩ যুবককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। থানা পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে তথ্য প্রযুক্তি ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করে গ্রেফতার দেখিয়ে সোমবার (২৫ নভেম্বর) আদালতে পাঠিয়েছে।

দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ‘রবি রৌমারী কুড়িগ্রাম’ নামের একটি ফেসবুক আইডিতে থেকে স্থানীয় সংসদ সদস্য প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেনকে ‘রাজাকার, ভোট ডাকাতি করে এমপি হয়েছেন’ উল্লেখ করে ফেসবুকে পোস্ট দেয়া হয়। ওই একই আইডিতে আরেকটি পোস্টে বলা হয়, ‘জাকির এমপি চোর, টাকা মেরে দেয়’। ফেসবুকে পৃথক পোস্ট দু’টি করায় রবিউল ইসলাম (১৫) এবং ওই পোস্টে বাজে মন্তব্য করার অপরাধে রাসেল রানা ও নাহিদ হাসান নামের ৩জনকে অভিযুক্ত করা হয়। ফেসবুক আইডিটিতে ঠিকানা লেখা ছিল, ‘বাংলাদেশ ইসলামি ছাত্রশিবির গুটলীগ্রাম, দাঁতভাঙ্গা, রৌমারী, কুড়িগ্রাম’।

এলাকাবাসী দৈনিক শিক্ষাবার্তা ডটকম কে জানায়, তথ্য প্রযুক্তি ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেফতারকৃত তিন জনের মধ্যে রবিউল ইসলাম ও রাসেল রানা সহোদর ভাই। এ দুজনের বাবার নাম আতিম মোল্লা ওরফে আতি উল্লাহ। তাদের বাড়ি উপজেলার দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের গুটলী গ্রামে। অপরজন নাহিদ হাসান একই উপজেলার হরিণধরা গ্রামের বাণিজ উদ্দিনের ছেলে। ৩ জনের মধ্যে দু’জন দাঁতভাঙ্গা স্কুল অ্যান্ড কলেজের ৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থী। আরেকজন টাঙ্গাইল পলিকেটনিক্যাল কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র বলে জানা গেছে।ফেসবুকে গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রীকে নিয়ে কটুক্তি করায় ৩ ছাত্র গ্রেফতার

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই আখতার হোসেন দৈনিক শিক্ষাবার্তা ডটকম কে জানান, ক্ষমতাসীন দলের সংসদ সদস্য প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেনের নামে ফেসবুকে কটুক্তি করে পোস্ট দেয়ায় থানায় অভিযোগ দায়ের করেন দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কর্মী আশরাফুল ইসলাম লাল মিয়া। অভিযোগের তদন্ত করে তথ্য প্রমাণ পাওয়ার পর মামলা দায়ের করা হয়। মামলায় তিনজনকে আসামি করা হয়। এদের সকলকেই পুলিশের হাতে গ্রেফতারর দেখানো হয়েছে।